সফল ইউটিউবার হতে ইউটিউবে কাজ শুরুর আগে যা না জানলেই নয়!

ইউটিউবে যাত্রা শুরু করতে চাচ্ছেন ভালো কথা, কিন্তু এর আগে আপনাকে এই পোস্টটি পড়তেই হবে।

 

এর কারণ হলো এখানে আমি এমন কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি যা না জানলে আপনার ইউটিউব ক্যারিয়ার বরবাদ হয়ে যেতে পারে!

 

তাই ধৈর্য্য সহকারে আমার এই পোস্টটি পড়ুন। আশা করছি পোস্টটি পড়া শেষে আমাকে ধন্যবাদ জানাতে আপনার কোন দ্বিধা থাকবে না। তাহলে শুরু করা যাক…

 

সফল ইউটিউবার হতে জানুন!

প্রথমেই যে বিষয়টি আপনাকে বলতে চাই সেটি হলো যে আপনার ভিডিও শুট করতে ভালো লাগে কিনা।

 

বর্তমান যুগের একজন মানুষ হিসেবে আপনার অবশ্যই একটি স্মার্টফোন আছে! একটু ভেবে দেখেন তো লাস্ট কবে আপনি আপনার ফোনের সাহায্যে কোন ভিডিও রেকর্ড করেছেন। যদি দেখেন যে বিগত পাঁচ-ছয় মাস আপনি কোন ভিডিও রেকর্ড করেননি তাহলে বুঝতে হবে যে আপনার আসলে ভিডিও শুট করার প্রতি তেমন কোনো ঝোঁকই নেই।

 

আর ভিডিও তৈরীর প্রতি যদি আপনার কোন নেশা বা ভালোবাসা না থেকে থাকে তাহলে কিন্তু ইউটিউবিং সত্যি বলতে আপনার জন্য নয়। শুনতে খারাপ লাগলেও প্রথমেই একটু তিতা কথা দিয়ে শুরু করাই ভালো। আর যদি আপনার মোবাইলে অজস্র ভিডিও রেকর্ড করা হয়ে থাকে যা আপনি স্বয়ং করেছেন তাহলে এর মানে এই দাঁড়ায় যে আপনি ভিডিও করতে ভালোবাসেন। তাহলে আপনার জন্য ইউটিউব হতে পারে একটি দারুণ পেশা। একই সাথে নেশাও!

 

আপনি হয়তো ভাবতে পারেন যে ভিডিও বানানোর প্রতি ঝোঁক না থাকলে তাহলে কেন মানুষ শুধু শুধু ইউটিউব এ আসবে। আসল কথা হল যে অনেককেই দেখবেন যে তারা শুধুমাত্র ঝোঁকের বশে অন্যকে দেখে ইউটিউবে আসে।

 

এর কারণ হলো তারা দেখে যে অনেকেই ইউটিউবিং করে ভালো আয় করছে এবং সুন্দর ক্যারিয়ার গড়তে সক্ষম হয়েছে। এ থেকে তাদের ইউটিউবিং শুরু করার প্রতি একটি আগ্রহ সৃষ্টি হয় যদিও তাদের ভিডিও বানানোর প্রতি কোন আগ্রহ নেই। এখানে টাকা আয় করাই তাদের কাছে মুখ্য আর এটি যদি আপনার মেইন উদ্দেশ্য হয় তবে আপনি জীবনেও ইউটিউবে সফল হতে পারবেন না। এ কথাটি আপনি লিখে রাখুন।

 

এ সম্পর্কে আমার স্ত্রীর কথা একটু বলি। যদিও সে এখনো ছোটখাটো একজন ইউটিউবার তবে যখন সে শুরু করেছিল তখন আমি বারবার তাকে বলতাম যে টাকা ইনকামের কথা চিন্তা না করতে, তখন সে একই কথা বলতো যে টাকা ইনকাম না এই যে ভিডিওতে ভিউ হচ্ছে, ভিডিওতে মানুষজন কমেন্ট করছে, অনেককে বিভিন্ন টিপস দিয়ে উপকার করতে পারছি এটাই আমার কাছে ভালো লাগছে।

 

তো এখান থেকে কি বুঝলেন? এখান থেকে বোঝা গেল যে কারো যদি কোন কাজের প্রতি ভালোবাসা থাকে তবে সে সে কাজটি করে যাবে তা থেকে কোন আয় না হলেও আর আপনার যদি টাকা আয় করাই মূল উদ্দেশ্য হয় তাহলে দেখা যাবে কি যে যখন দেখবেন যে তিন-চার মাস কোন টাকা ইনকাম হচ্ছে না তখন আপনি আর ইউটিউবিং কন্টিনিউ করবেন না।

 

তাই তিন-চার মাস নষ্ট করার থেকে এখন থেকেই ইউটিউবকে গুড বাই জানানো অনেক শ্রেয় যদি আপনার মূল উদ্দেশ্য হয় টাকা ইনকাম করা আর যদি ভিডিও বানানো ভালো লাগে তাহলে দেখবেন যে টাকা আপনার পিছনে ছুটবে, আপনার টাকার পেছনে ছোটা লাগবেনা।

 

যাই হোক অনেক বকবক করে ফেললাম এবং অনেক জ্ঞান দিয়ে ফেললাম। এখন আসি মূল প্রসঙ্গে যে কিভাবে সফল ইউটিউবার হবেন।

 

সফল ইউটিউবার হতে গেলে আমি আপনাকে শুধুমাত্র দুটি কাজ করার পরামর্শ দেবো। হ্যা মাত্র দুটি কাজ। আর এই দুটি কাজ হলো –

  • এক. আমার কন্টেন্টসমূহ নিয়মিত মনোযোগ সহকারে দেখতে থাকুন এবং
  • দুই. কঠোরভাবে আমার নির্দেশনাসমূহ মেনে চলুন

 

এভাবে আপনি কিছু মাস কন্টিনিউ করুন দেখবেন যে আপনি সফলতার স্বাদ পেতে শুরু করেছেন। যদিও সফলতার কোন শেষ নেই তবুও সাধারণ মানুষ সফল হওয়া বলতে যা বোঝায় আপনি তা হতে পারবেন বলে আশা রাখছি।

 

তো আমার কনটেন্ট সমূহ কেন এত কাজে আসবে?

 

খুব ভালো কথা। আমি আমার এই ওয়েবসাইট ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রতিদিনই ইউটিউবিং একেবারে শুরু থেকে কিভাবে একে একে চালিয়ে যেতে হবে তা সম্পর্কে বিভিন্ন কনটেন্ট দিতে থাকব। একই সাথে যারা ইউটিউব চ্যানেল অলরেডি শুরু করেছেন তারা কিভাবে আরো ভালো করতে পারেন সেই সম্পর্কিত বিভিন্ন এডভান্সড লেভেলের টিউটোরিয়াল আমি আমার এই সাইট ও চ্যানেলে দিতে থাকব।

 

যারা একেবারে নতুন বুঝতে পারছেন না যে কোন বিষয়ের উপর ইউটিউবিং শুরু করা উচিত তাদের জন্য আমি বিভিন্ন ইউটিউব নিশ সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করব। এরপর একটি ইউটিউব চ্যানেল কিভাবে খুলতে ও তা যথাযথভাবে সাজাতে হয় তা নিয়ে আলোচনা থাকবে নিয়মিতই।

 

আর সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি সেটি হল ভিডিও কিভাবে তৈরি করবেন, এর জন্য কি কি টুল দরকার হবে তা নিয়ে আমি নিয়মিত আপনাকে জানাতে থাকবো। এরপর আপনার চ্যানেল কিভাবে গ্রো করবেন, কিভাবে তা থেকে বিভিন্ন পন্থায় আয় করবেন সে সম্পর্কে আলোচনা তো পাবেনই।

 

সর্বোপরি ইউটিউবিং করে কিভাবে আপনি একটি সুন্দর ক্যারিয়ার গড়বেন, আপনি একটি ইউটিউব লাইফস্টাইল পাবেন তা আমি আপনাকে একেবারে হাতে-কলমে শিখিয়ে দিব ইনশা আল্লাহ।

 

মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর কাছে আমার ফরিয়াদ এই যে তিনি যেন আমাকে নিয়মিত ভাল ভাল পোস্ট ও ভিডিও বানানোর তৌফিক দান করেন যাতে করে বিপুল সংখ্যক মানুষ ইউটিউবিং কে একটি শক্তিশালী পেশা হিসেবে নিতে পারে।

 

দশজনকে আয়ের পথ দেখানো দশজনকে কোন কিছু দান করার থেকে শ্রেয়, তাই এমন একটি মহৎ কাজে আপনাদের সাহায্য কামনা করছি।

 

আপনারা নিয়মিত আমার কনটেন্টসমূহ দেখুন ও তা মেনে চলুন, এতেই আমি সন্তুষ্ট।

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে জানান আর ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন

Leave a Comment