বাংলাদেশের অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কেন বিপদে পড়বে? [আমেরিকায় ও একই ঘটনা ঘটেছিলো!]

সমাজে যখন কোন চেঞ্জ আসে তখন বেশিরভাগ মানুষই তার সুফল সম্পর্কে বেখবর থাকে।

 

এই যেমন ধরুন ইন্টারনেটের ব্যাপক প্রসারের কারণে অধিকাংশ মানুষ যেখানে অনলাইনে অবস্থান করছে, সেখানে অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কিন্তু এব্যাপারে উদাসীন।

 

এটা যে শুধুমাত্র বাংলাদেশের ঘটনা তানা।

 

খোদ আমেরিকাতে বড় বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পড়ে গিয়েছিল শুধুমাত্র ইন্টারনেট কে অবজ্ঞা করার কারণে!

 

আর এখন তো দেখতেই পারছেন ওয়ালমার্ট আমাজনের কাছে কিভাবে নাস্তানাবুদ হচ্ছে।

 

আসলে এসবই হলো অনলাইনের সক্ষমতা বোঝানোর জন্য যথেষ্ট।

 

খুবই খারাপ লাগে যখন দেখি বাংলাদেশের বড় বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অনলাইন কে তেমন একটা গুরুত্ব দিচ্ছে না।

 

এখন অবস্থা আগের থেকে তাও একটু ভালো।

 

আমি বছর পাঁচেক আগেও সবাইকে বলতাম যে কেন তারা গুগল ও ফেইসবুক বিজ্ঞাপনে আসছে না।

 

যাই হোক এখন কিন্তু টিভি, নিউজপেপার থেকে অনলাইনে বিজ্ঞাপন কোনো অংশে কম নয়।

কিন্তু তাতে কি!

 

ডিজিটাল মার্কেটিং এর সাহায্যে যে ব্যবসার ব্যাপক প্রসার করা সম্ভব তা কিন্তু তাদের মাথায়ই নেই।

 

একারণে এক্ষেত্রে ইনভেস্টমেন্ট ও তেমন একটা দেখা যাচ্ছে না।

 

আমরা বাইরের অনেক ক্লায়েন্টের কাজ করেছি যারা পেশায় একজন নির্মাণ শ্রমিক, কিন্তু তারপর ও তারা ডিজিটাল মার্কেটিং এর হাত ধরে তাদের ব্যবসার লাভ আরও বাড়াতে চায়।

 

আমি খুব সাবধান করে দিতে চাই ঐসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে যারা অনলাইনের পাওয়ার সম্পর্কে এখনো বেখবর।

 

অনেক ব্যবসায়ী কে দেখেছি যে তারা ডিজিটাল মার্কেটিং এর কথা শুনলে অনেকটাই তুচ্ছ-তাচ্ছিল্ল করে।

 

সেদিন খুব বেশি দূরে নয় যেদিন আপনার ব্যবসার গ্রোথ দেখে মানুষ তুচ্ছ-তাচ্ছিল্ল করবে।

 

আসা করি সেরকম টা আপনার ব্যবসায় না ঘটুক।

 

যেখানে যে ব্যবসায়ী আছেন না কেন ভালো থাকবেন, সুখে থাকবেন এ বলেই আজকের পোস্ট এখানে শেষ করছি।

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে জানান আর ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন

Leave a Comment