হোস্টিং এর দামঃ নেমচিপের সকল হোস্টিং প্যাকের দাম জানুন

কেমন আছেন সবাই? আমি জানি আপনারা ভালই আছেন। কারণ ভাল না থাকলে তো আমার পোস্ট পড়তে পারতেন না। যাই হোক, অনেক মজা করে ফেলেছি। এখন আসি মূল কথায়।

 

টাইটেল দেখেই এতক্ষণে বুঝে ফেলেছেন আজ কি নিয়ে কথা বলবো। জ্বি ভাই, আজ আমি হোস্টিং এর দামের বিষয়ে কথা বলবো। আপনার ওয়েবসাইটের জন্য হোস্টিং কেনার জন্য কত টাকা খরচ হবে সেটাই তুলে ধরবো আমার এই পোস্টে।

 

এই মুহূর্তে আমার পোস্ট পড়ছেন এমন অনেকেই আছেন যারা হোস্টিং সম্পর্কে তেমন ধারণা নেই। আমি তাদের বোঝার জন্য সামান্য একটু বেসিক বিষয় বলতে চাই হোস্টিং নিয়ে।

 

হোস্টিং ব্যবহার করা হয় নিজের কোন ওয়েবসাইটের জন্য। আপনার যদি কোন ওয়েবসাইট থাকে তাহলে সেখানে হোস্টিং ব্যবহার করে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের ডাটা সংরক্ষণ করতে পারবেন।

 

আপনি আপনার সাইটে কোন একটা পোস্টে কোন ভিডিও বা কোন একটা সফটওয়ারের মূল ফাইল আপনার ভিজিটরদের জন্য শেয়ার করতে চান। তাহলে আপনাকে সেই সফটওয়ার বা ঐ রকম ডাটা সাইটে সংরক্ষণ করে রাখার জন্য হোস্টিং দরকার।

 

হোস্টিং ছাড়া আপনি এই ধরনের ডাটা সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন না।

 

এখন দাম নিয়ে আলোচনা করবো। তবে তার আগে বলে রাখি যে, হোস্টিং এর ভিতর একটা সাইটের অনেক প্রাইভেসি লুকিয়ে থাকে। আর আপনি নিজের সাইটের প্রাইভেসি ধরে রাখার জন্য লোকাল কোন কম্পানি বা প্রতিষ্ঠান থেকে হোস্টিং কিনলে প্রাইভেসি পাবেন না। তাই আমি চাইবো যে, আপনারা ডাইরেক্ট মেইন কোন কম্পানি বা প্রতিষ্ঠান থেকে হোস্টিং কিনুন।

 

সেরা হোস্টিং কম্পানির মধ্যে namecheap থেকে হোস্টিং কিনতে কেমন খরচ হবে সেটা বলবো। কারণ এই সাইট অনেক অফারের পাশাপাশি প্রায় সব সময়ই ডোমেইন বা হোস্টিং কেনার জন্য জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকে। এছাড়া আরো অনেক সাইট আছে যাদের ডাটা সেন্টার সরাসরি UK বা USএ এ তে। এই যেমন GoDaddy. তবে আপনি মেইন যে কোন কম্পানি থেকেই কিনতে পারবেন। কারণ কম্পানি ভেদে দামের সামান্য হ্রাস বৃদ্ধি ঘটতে পারে।

 

হোস্টিং এর দাম

বিভিন্ন ধরনের হোস্টিং পাবেন আপনি। হোস্টিং কিনতে হবে আপনার সাইটের উপর ডিপেন্ড করে। অর্থাৎ আপনার সাইটের জন্য যে হোস্টিং ভাল হবে সেটা কিনতে হবে। হোস্টিং এর বিভিন্ন প্যাকেজ আছে। আর এই প্যাকেজের দামও মেয়াদ হিসাবে ভিন্ন ভিন্ন। আমি নিচে বিভিন্ন ধরনের হোস্টিং এর প্যাকেজ ও এর দাম উল্লেখ করলাম।

 

Shared Hosting

বিভিন্ন ধরনের হোস্টিং এর মধ্যে শেয়ার হোস্টিংটা একটু বেশি জনপ্রিয়। কারণ প্রথম দিকে প্রায় সবাই তাদের সাইটের জন্য এই হোস্টিং ব্যবহার করে থাকে। এই হোস্টিং এর আবার অনেক গুলো প্যাকেজ আছে। প্যাকেজ গুলো মূলত সুযোগ সুবিধার উপর ভিত্তি করে এবং মেয়াদের উপর ভিত্তি করে দাম নির্ধারিত হয়। শেয়ার হোস্টিং এর দাম শুরু হয়েছে প্রায় ২.৮৮ ডলার থেকে। অর্থাৎ সর্বনিম্ন দাম এটা। যা বাংলাদেশী টাকায় দাঁড়ায় প্রায় ২৪২ টাকা। মেয়াদ ১ মাস।

 

Reseller Hosting

এই হোস্টিং এর সর্বনিম্ম দাম ১৬.৮৮ ডলার বা প্রায় ১৪১৮ টাকা। যার মেয়াদ ১ মাস। আপনি রিসেলার হোস্টিং এর আরো প্যাকেজ পাবেন। যা মেয়াদ ও সুযোগ-সুবধার উপর ডিপেন্ড করে দাম নির্ধারণ করা আছে।

 

VPS Hosting

ভিপিএস হোস্টিং এর দাম ১৪.৮৮ ডলার থেকে শুরু হয়েছে। যা প্রায় ১২৫০ টাকার সমান। এর মেয়াদও এক মাস। তবে আপনি মেয়াদ বাড়িয়ে নিতে পারবেন অন্যান্য হোস্টিং এর মত করেই। আর প্যাকেজও আছে অনেকগুলো। পছন্দমত বেছে নিতে পারবেন যে কোন প্যাকেজ।

 

Dedicated Servers

ডেডিকেটেড সার্ভারস এর দাম একটু বেশি হয়ে থাকে। তবে এই হোস্টিং অনেক বেশি প্রাইভেসি দিতে পারে। অনেক বড় বড় কম্পানি তাদের নিজস্ব অফিশিয়াল ওয়েবসাইটের জন্য এই ডেডিকেটেড সার্ভারস ব্যবহার করে থাকে। এর দাম শুরু হয়েছে ৫৮.৮৮ ডলার থেকে। যা প্রায় ৪৯৫০ টাকার মত আসে। এর মেয়াদও ১ মাস। তবে মেয়াদ বাড়িয়ে নিতে পারবেন। আর সাথে অন্যান্য প্যাকেজ তো আছেই।

 

Email Hosting

ইমেইল হোস্টিং এর দাম শুরু হয়েছে ৯.৯৯ ডলার বা প্রায় ৮৩০ টাকা থেকে। এই হোস্টিং এরও অনেক গুলো প্যাকেজ আছে এবং সুবধামত মেয়াদ বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

 

Managed WordPress Hosting

ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং এর দাম অনেক কম হয়ে থাকে। তবে প্যাকেজ ও মেয়াদের সাথে সাথে দাম বাড়ে। ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং এর দাম ১ ডলার থেকে শুরু হয়েছে। যা বাংলাদেশী টাকায় ৮৪ টাকা।

 

আমি উপরে যত ধরনের হোস্টিং এর দাম নিয়ে আলোচনা করলাম সবগুলো হোস্টিংই আপনি মাসিক বা বাৎসরিক ভিত্তিতে কিনতে পারবেন। তবে মেয়াদ ফুরিয়ে গেলে আবার রিনিউ করে নিতে পারবেন। আর চাইলে প্যাকেজও চেঞ্জ করতে পারবেন।

 

বাংলাদেশী টাকায় যে আনুমানিক দাম আমি উল্লেখ করেছি সে দাম কম বেশি হতে পারে। কারণ ডলারের দাম প্রায়ই কম বেশি হয়ে থাকে।

 

তাহলে আজ এই পর্যন্তই। মনে হয় ক্লিয়ার একটা ধারণা পেয়েছেন হোস্টিং এর দাম নিয়ে। আবার দেখা হবে আমার এই সাইটে অন্য কোন গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট নিয়ে। ভাল লাগলে সবার সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আর কোন মতামদ থেকে থাকলে কমেন্ট বক্সতো খোলাই আছে। জানিয়ে দিন নিজের মতামত। ধন্যবাদ

ভাল লাগলে শেয়ার করুন আর কোন প্রশ্ন বা মতামত থাকলে তা কমেন্টে জানান

Leave a Comment