ব্লগ কি ও কেনঃ ব্লগ কাকে বলে ও কেন করবেন তা এই পোস্টে জানুন

ব্লগিং ক্যারিয়ার শুরু করার আগে আপনার ব্লগ কি তা জেনে নেওয়া উচিত। এতে করে আপনার কন্সেনপ্ট ক্লিয়ার হয়ে যাবে।

 

প্রথমেই জেনে নেই ব্লগ কি জিনিস!

আপনারা কমবেশি সবাই ডায়েরি লেখার সাথে পরিচিত, তাই না? একটি ব্লগ ঠিক একটি ডায়েরির মত কাজ করে। তবে ব্লগকে আপনি ডায়েরির ডিজিটাল ফরমেট ও বলতে পারেন।

 

এবার আসা যাক অতীতে মানুষ তাদের ডায়েরিতে কি করতো? আসলে মানুষ ডায়েরিতে তাদের নিত্যদিনের করা কাজসমূহ লিপিবদ্ধ করতো এই যেমন কোথায় গেল, কি করল, কি খেল ইত্যাদি ইত্যাদি। এগুলো তারা পরবর্তিতে দেখতো ও পূর্বের সৃতিচারণ করতো।

 

তারা ডায়েরি মূলত তাদের নিজেদের দেখার জন্যই তৈরি করতো। এটা পুরোটাই ছিল তাদের পার্সোনাল সম্পদ। ডায়েরি লিখে মানুষ কিন্তু কোন আয় করতে পারতো না। এটা ছিল জাস্ট একটা শখের বিষয়বস্তু।

 

তবের কালের বিবর্তে ডিজিটাল যুগে ডায়েরিকে রিপ্লেস করার জন্য আসলো ব্লগ। মানুষ যখন তাদের নিত্যদিনের ক্রিয়াকলাপ ব্লগে লেখা শুরু করলো তখন তা আর পার্সোনাল কোন ব্যাপার থাকলো না। এটা সারা দুনিয়ার মানুষ দেখতে পারলো। ফলে ব্লগ থেকে আয় করার এক অভিনব উপায় সৃষ্টি হল।

 

ব্লগে যে মানুষ শুধু তাদের নিত্যদিনের ক্রিয়াকলাপ প্রকাশ করে তা নয়, আপনি চাইলে আপনার কোন জানা বিষয় নিয়েও আপনার ব্লগে আলোচনা করতে পারেন। এই যেমন আমি আমার এই ব্লগে আমার লাইফস্টাইল প্রকাশের সাথে সাথে বিভিন্ন বিজনেস আইডিয়া ও স্ট্র্যাটেজি নিয়ে আলোচনা করি।

 

ব্লগিং একটি মজার জিনিস আর এর সাথে যেহেতু অনেক আয় করাও সম্ভব হয়, তাই অজস্র মানুষ ব্লগিং করার জন্য উৎসাহিত হচ্ছেন।

 

এখন আসা যাক ব্লগ কেন এই সম্পর্কে কিছু কথা বলতে।

 

আপনি দেখছেন যে ব্লগ একটা শখের বিষয় আবার এ থেকে আয়ও করা যায়! তাই ব্লগ মূলত এ দুটি কারনেই অনেকে শুরু করেন। তাছাড়া যেহেতু ব্লগের মাধ্যমে একজনের লব্ধ জ্ঞান মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেওয়া যায়, তাই এর ফলে অনেক মানুষ উপকৃতও হতে পারেন।

 

তাই আমরা যদি বলি যে কেন আপনি ব্লগে লেখালেখি করবেন তাহলে এখন ৩ টি কারন বলা যায় আর তা হলঃ

১) শখ

২) আয় ও

৩) মানুষকে সাহায্য করা

 

অধ্যায় ২ঃ ব্লগারদের আয়!

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে জানান আর ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন

Leave a Comment